What Is Blogging? Why you do blogging? ব্লগিং/ব্লগ কি? কেন করবেন?

ব্লগিং/ব্লগ কি? কেন করবেন? ItSadik.xyz

আসসালামু আলাইকুম,
সকলে কেমন আছেন…??
আশাকরি সবাই ভালো আছেন।আমিও আল্লাহর রহমতে অনেক ভালো আছি।আর যারা নিয়মিত ITSadik সাথে থাকেন তাদের ভালো থাকারই কথা। কেননা,এখান থেকে আমরা প্রতিনিয়ত অনেক অজানা বিষয়গুলো জানতে ও শিখতে পারি।
আমি ছাদিকুর রহমান আমি আজ আপনাদের সামনে আলোচনা করবো ব্লগিং/ব্লগ কি? কেন করবেন? এই সম্পর্কে সম্পূর্ণ আলোচনা।
 
 ত চলুন আর কথা না বাড়িয়ে আসল কাজে চলে যাইঃ

ব্লগিং/ব্লগ কি?

ব্লগ হলো একটি অনলাইন ভিত্তিক ওয়েব পৃষ্টা যেখানে অনেকগুলো পোস্ট, ছবি ও ভিডিও, হার্ড কপির নথি এবং অন্যান্য তথ্য সংবলিত ওয়েব পেইজ থাকে। অর্থাৎ ব্লগকে আমরা ডায়েরি বা জার্নাল এর সাথে তুলনা করতে পারি। যেখানে একজন ব্লগার তারা ব্যক্তিগত দক্ষতা ও ইচ্ছা প্রকাশ করে থাকেন।
blog শব্দটি weblog এর সংক্ষিপ্ত রুপ। ইন্টারনেটে সংযোগ হয়ে আপনি blog তৈরি বা অন্যান্য blogger দের কন্টেন্ট পড়তে পাবেন। সুতরাং ব্লগিংকে আমরা বলতে পারি এটি একটি লেখার কাজ।


কোন একটি নির্দিষ্ট ওয়েব সাইটে কোন বিষয়কে পাঠকদের মতামত প্রদানের জন্য তুলে ধরাকে ব্লগিং বলা হয়। ব্লগিং বিষয়টা যদি সংক্ষেপে বলি তাহলে বলব বিভিন্ন ব্লগে বা ওয়েভ সাইটে যা লেখা লেখি হয় তাই হল ব্লগিং । ব্লগিং বিভিন্ন বিষয় নিয়ে হতে পারে, যেমন রাজনীতি, সাহিত্য, টেকনোলজি, ভ্রমণ কাহিনী, আপনার জীবনের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখা একটি ডায়েরির মত সব কিছু গুছিয়ে রাখা, এবং তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞান সম্বন্ধে লিখা ইত্যাদি।

ব্লগিং কেন করবেন?

ব্লগ বা ব্লগিং শব্দটি শুনে নাই এমন লোকের সংখ্যা তুলনামূলক ভাবে অনেক কম বলে আমি বিশ্বাস করি। উন্নত দেশ গুলোতে ব্লগিং খুব জনপ্রিয় একটা পেশা। ব্লগিং নিয়ে লেখাপড়া করে এবং ইনকাম করে। প্রায় সব শ্রেণীর পেশার মানুষ উন্নত দেশগুলোতে ব্লগিং এর সাথে জড়িত। আবার কেউ প্রধান ইনকাম সোর্স হিসেবে জীবন যাপন করে। তবে এই ব্লগিং নিয়ে বাংলাদেশে কিছু বিরূপ প্রতিক্রিয়া আছে। অনেকে আবার ব্লগ বা ব্লগিং সম্পর্কে তেমন কিছু জানেও না। আমি চেষ্টা করবো সবার জন্য ব্লগিং নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করার।

ব্লগিং শুরু করার অনেক কারণ থাকতে পারে, যেমন আপনি চাইলে আপনার ব্যক্তিগত ব্লগ করতে পারেন বা প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।
অনেক ব্লগার তাদের সখ হিসেবে ব্লগিং শুরু করেন এবং পরবর্তীতে এটিকে পেশা হিসেবেও বেছে নেন।

ব্লগার কে বা কারা ?

যারা ব্লগিং করে বা যারা ইন্টারনেটে বিভিন্ন ওয়েভ সাইটগুলোতে লেখালেখি করে এবং এই ব্লগ গুলো যারা বানায় তারাই হচ্ছে ব্লগার অর্থাৎ আমি একটু পরিস্কার করি, যিনি ব্লগ তৈরী করে ব্লগে পোস্ট করেন বা বিভিন্ন লেখা লিখি করেন তাদেরকেই বলা হয় ব্লগার।

ব্লগিং করে কি হবে :

আপনি যদি বলেন ব্লগিং করে কি হবে? ব্লগিং করলে লাভতো আছেই কিন্তু এখানে আপনাকে আগে ঠিক করতে হবে আপনি বাংলায় ব্লগিং করবেন না ইংরেজীতে। আপনি যদি বাংলায় ব্লগিং করেন তাহলে লাভ আছে কিন্তু একটু কম। এতে আপনি ভাল একজন লেখক হতে পারেন এবং অনলাইন ভিত্তিক সাংবাদিকতায় চান্স পেয়ে যেতে পারেন। এছাড়া ভার্চুয়াল জগতে আপনার নাম হবে যা আপনি পরিচিতি সুনাম বৃদ্ধি পেতে পারে। আবার আপনার ব্লগ যদি নামকার হয়ে উঠে তাহলে বিভিন্ন কোম্পানির ( ক্লিকবিডি, এখনি.কম, আজকেরডিল.কম ইত্যাদি) এডস আপনার ব্লগে দিয়ে প্রতিমাসে মুটামুটি কিছু টাকা আয় করতে পারবেন। এছারাও বিভিন্ন এডস কোম্পানিতো (গুগল এ্যাডসেন্স, ইনফোলিঙ্কস, ক্লিকসোর) আছেই। আসলে বাংলা ব্লগের মাধ্যমে আয় করা একটু কঠিন।
আর আপনি যদি ইংরেজীতে ব্লগিং করেন তাহলে ভাল লেখক হওয়া থেকে শুরু করে সুনাম এবং আয়ের রয়েছে ব্যাপক সম্ভাবনা। এখানে আপনি বিভিন্ন বিষয়ের উপর ব্লগ লিখে বাহারি পণ্যের বিজ্ঞাপন ( আপনার ব্লগ যদি নামকরা ব্লগ ও সনামধন্য হয়) এবং বিভিন্ন নামকরা অনলাইন এডস কোম্পানির (গুগল এ্যাডসেন্স, ইনফোলিঙ্কস, ক্লিকসোর) পাবলিশের মাধ্যমে প্রচুর টাকা আয় করতে পারেন। এছাড়াও আছে এফিলিয়েশনের মাধ্যমে আয় । তাছাড়া অনলাইনের জনপ্রিয়তার সাথে সাথে মানুষ ব্লগিং এ খুব বেশি ঝুকে পড়ছে।
পরিশেষে, ব্লগিং একটি শক্তিশালী মিডিয়া বা গণমাধ্যম এর সাহায্যে অনেক অসম্ভবকে সম্ভব করা যায়। ব্লগিং এর ফলে প্রত্যেক দেশের সামাজিক, অর্থনৈতিক এবং রাজনৈতিক বিভিন্ন ব্যাপারে অভাবনীয় পরিবর্তন আসছে। এর সঠিক প্রয়োগে আমাদের সকলের জন্য সুফল বয়ে আনবে ।

এক নজরে বিস্তারিত

  • 1 ব্লগ
  • 2 ব্লগের প্রকারভেদ
    • 2.1 ব্যক্তিগত ব্লগ (personal blog)
    • 2.2 সামাজিক ব্লগ (community blog)
  • 3 ব্লগার
  • 4 ব্লগিং
  • 5 ব্লগার হিসেবে জনপ্রিয়তার বুলেটপ্রুফ কিছু টিপস
  • 6 ব্লগিং এর সেরা ১২ টি সাইট
    • 6.1 ব্লগার ডট কম
    • 6.2 ওয়ার্ডপ্রেস
    • 6.3 টাম্বলর
    • 6.4 মিডিয়াম
    • 6.5 লাইভ জার্নাল
    • 6.6 কুরা
    • 6.7 উইবলি
    • 6.8 ইডু ব্লগ
    • 6.9 ব্লগ ডট কম
    • 6.10 গোষ্ট অর্গ
    • 6.11 উইক্স
    • 6.12 হাবপেইজ

ব্লগার হিসেবে জনপ্রিয়তার বুলেটপ্রুফ কিছু টিপস

১. ব্লগ লিখতে অবশ্যই সর্বজনবোধ্য ভাষারীতি ব্যবহার করতে হবে।
২. ব্লগিং এর মাধ্যমে অবশ্যই আত্মঘাতী কোন লেখা প্রকাশ করা উচিত নয়।
৩. কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে এমন লেখা প্রকাশ করা ঠিক নয় এতে বিবাদের সৃষ্টি হতে পারে।
৪. কোন টিপস লিখার আগে অবশ্যই নিজে চেষ্টা করে দেখতে হবে টিপসটি কার্যকরী কিনা।
৫. টিঊটোরিয়াল লিখার সময় প্রয়োজনীয় তথ্য এবং সম্ভব হলে সচিত্র টিউটোরিয়াল লিখুন।
৬. ব্লগে লিখার সময় কপি/পেস্ট পদ্ধতি আপনার জনপ্রিয়তার পথে বাধা হতে পারে তাই এ বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করুন এবং যদি প্রকাশ করেন তবে অবশ্যই সে লেখাটির যথাযথ রেফারেন্স টিউনের সাথে সংযুক্ত করুন।
৭. অন্যের লেখা চুরি করা বা নিজের নামে চালিয়ে দেয়াটা কোন বুদ্ধিমান ব্লগার ভাইয়ের কাজ হতে পারেনা। আর একজন চোরকে পাঠক সমাজ কখনোই ব্লগার হিসেবে মেনে নেবেন না। তাই ব্লগ ভর্তি করার জন্য বা পেজ ভিউ বাড়ানোর জন্য ভুলেও অন্যের লেখা চুরি করবেননা। অন্যের লেখা চুরিকে সাধারনত প্লাগিরিজম (plagirism) নামে অভিহিত করা হয়ে থাকে। তবে সম্ভব হলে অন্যের লেখা অনুমতি সাপেক্ষে শেয়ার অথবা রেফারেন্স উল্লেখ করে আপনার ব্লগে যুক্ত করতে পারেন।
৮. প্রতিদিন ব্লগে নিত্যনতুন প্রয়োজনীয় তথ্য প্রকাশ করুন এতে আপনার ব্লগ এবং ব্লগার হিসেবে আপনিও দ্রুত জনপ্রিয়তা লাভ করবেন।

তো বন্ধুরা টিউন অনেক বড় হয়ে গেছে। আশা করি টিউনি আপনাদের ভাল লেগেছে। আর আমিও আপনাদের অনেক ভালোভাবে বুজাতে পারছি। তারপরেও যাদের বুজতে কোন সমস্যা হবে তারা প্লিজ টিউমেন্ট করুন। আমি তাদের বুজানোর জন্য যতেষ্ট চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।
তো বন্ধুরা আজ এই পযন্ত দেখা হবে পরবতী টিউন এ নতুন কোন বিষয় নিয়ে ততোক্ষণ সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন। আর ITSadik এর সাথেই থাকবেন।

ফর হেল্পঃ

অবশ্য আপনাদের কোন সমস্যা হলে আমার সাথে যোগাযোগ করবেন। আমি আমার সম্পূর্ণ দেয়ে হেল্প কারার চেষ্টা করব। ইনশাআল্লাহ!




সবাই ভালো থাকবেন ধন্যবাদ
আমার ফেসবুক : Sadikur Rahman Mejan
আমার সাইট ভিজিট কারার অনুরুধ রইল।
সাইট লিঙ্কঃ

খোদা হাফেজ

Rules: Make sure your comment add content to the page. Then add your links thereafter. Irrelevant comments will be deleted.

Post a Comment

Add Comment (0)

Previous Post Next Post