আইটি ছাদিক https://www.itsadik.xyz/2019/10/free-blogging-tools.html

ব্লগার দেড় জন্য জরুরি ৫ টি অনলাইন টুল – (Free Blogging tools)

বিজ্ঞাপন স্পেসের আগে / পরে
ব্লগার দেড় জন্য জরুরি ৫ টি অনলাইন ব্লগিং টুলস (blogging tools)

নিচে দেয়া প্রত্যেকটি অনলাইন টুলস (online blogging tools) বা ওয়েবসাইট আপনারা ফ্রীতেই ব্যবহার করতে পারবেন। তাছাড়া, প্রত্যেকটি টুল এর কাজ কি এবং ব্লগার হিসেবে কেন টুল গুলি ব্যবহার করবেন, সেটাও আমি নিচে বলে দেব।
১. Gtmetrix.comCheck website loading speed.

আপনারা অবশই জানেন যে, একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড (loading speed) যত ভালো হবে বা যতটা কম সময়ে ওয়েবসাইট লোড হবে, ততটাই ভালো ভাবে গুগল সার্চে রাংক (rank) করার ক্ষমতা সেই ওয়েবসাইটের হবে।

এবং, অনেক স্লো ভাবে লোডিং হওয়া ওয়েবসাইট, গুগল কখনোই ভালো পাইনা। ফলে, আপনার ওয়েবসাইটে গুগল থেকে আশা ট্রাফিক বা ভিসিটর্স এর সংখ্যা অনেক বেশি পরিমানে কমে যায়।


তাই, GTmetrix website এর মাধ্যমে আমরা আমাদের ওয়েবসাইট বা ব্লগের loading speed কতটা দ্রুত বা স্লো সেটা দেখে নিতে পারি।

আপনি আপনার ব্লগের হোম পেজ বা যেকোনো আর্টিকেল পেজের URL address দিয়ে “test your site” বাটন এ ক্লিক করলেই, GTmetrix আপনার ব্লগ বা আর্টিকেল পেজ কতটা জলদি ব্রাউজারে লোড হবে, সেই সময় দেখিয়ে দেয়।

এমনিতে, GTmetrix এর performance score, “A” থেকে “C” র ভেতরে থাকলে ভালো এবং page loading time ৫ সেকেন্ডের ভেতরে থাকা মানে আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড ভালোই আছে।

তবে, এর থেকে নিচে যদি আপনার ব্লগের score রয়েছে, তাহলে অবশই আপনার কিছু জিনিসে কাজ করতেই হবে।

আপনারা ব্লগের বা আর্টিকেল পেজের লোডিং টাইম বেশি কেন, সেটা “Waterfall” অপশনে গিয়ে সঠিক ভাবে দেখতে পারবেন।

এবং, এভাবে ব্লগের লোডিং স্পিড স্লো হওয়ার কারণ গুলি জেনে সেগুলির ওপরে কাজ করে, নিজের ব্লগ ও ওয়েবসাইটের loading speed ভালো করে নিতে পারবেন।

আমি এবং প্রায় ৯০% professional blogger রা এই অনলাইন টুলটি ব্যবহার করেন।
২. Google keyword planner Google keyword planner

এখন যদি আপনারা ব্লগে আর্টিকেল লেখার আগে, ভালো করে কীওয়ার্ড রিসার্চ না করেই আর্টিকেল লিখেন, তাহলে এইটা আপনার অনেক বড়ো ভুল।

এবং, গুগল সার্চ থেকে আপনার ব্লগে ট্রাফিক অনেক কম আসার এটাই প্রধান কারণ।

তাই, ব্লগে আর্টিকেল লেখার আগেই সব সময় ভালো করে “কীওয়ার্ড রিসার্চ” করে নিবেন।


মনে রাখবেন, কীওয়ার্ড রিসার্চ এমন একটি প্রক্রিয়া যেখানে আমাদের ব্লগের আর্টিকেলের সাথে জড়িত কিছু লাভজনক কীওয়ার্ড খুঁজে বেড় করতে হয়।

লাভজনক কীওয়ার্ড মানে, এমন কিছু কীওয়ার্ড যেগুলি প্রত্যেক মাসে অনেক ভালো সংখ্যাতে গুগল সার্চে লোকেরা সার্চ করে।

এখন, গুগল সার্চে কোন বিষয়ে বা কীওয়ার্ডে কতটা সার্চ হচ্ছে, সেটা খুঁজে বেড় করবো কিভাবে ?

এর সোজা উত্তর হলো, “Google keyword planner tool“.

গুগলের এই ফ্রি টুল ব্যবহার করে, আপনারা যেকোনো কীওয়ার্ড, শব্দ বা বাক্য লিখে সার্চ করে সেই বাক্য বা শব্দ গুগল সার্চে মাসে কতবার লোকেদের দ্বারা সার্চ করা হচ্ছে, সেই তথ্য পেয়ে যাবেন।

তাছাড়া, আপনারা যেকোনো শহর বা দেশ বেঁচে নিয়ে, কেবল সেই বেঁচে নেয়া জায়গাতে যেকোনো কীওয়ার্ড, বাক্য বা শব্দ কতবার সার্চ হচ্ছে, সেটাও জেনেনিতে পারবেন।

গুগল কীওয়ার্ড প্লানের টুলের আরো এক বিশেষত্ব রয়েছে।

আপনাকে এখানে অনেক ধরণের Keyword ideas দেয়া হয় যেগুলি আপনার সার্চ করা কীওয়ার্ড এর সাথেই জড়িত (related) থাকবে।

এভাবে আপনারা আপনার ব্লগের জন্য অনেক রকমের নতুন নতুন আর্টিকেল টপিক বা আর্টিকেলের বিষয়ও খুঁজে পেতে পারবেন।

একজন ব্লগার হিসেবে, আপনার এই টুল ব্যবহার করাটা অনেক বেশি পরিমানে জরুরি।

এমনিতে, ইন্টারনেটে এই ধরণের কীওয়ার্ড প্ল্যানিং বা কীওয়ার্ড রিসার্চ টুল অনেক রয়েছে। তবে বেশিরভাগ পেইড।

তবে, গুগল কীওয়ার্ড প্ল্যানার (google keyword planner) এর মতো সঠিক তথ্য আপনাকে কোনো অন্য টুল দিতে পারবে বলে আমি মনে করিনা।

ব্লগে আর্টিকেল লিখার আগেই যদি আমরা আর্টিকেলের বিষয়ে গুগল সার্চে কতটা সার্চ হচ্ছে বা সার্চ হচ্ছে কি না, সেই তথ্য পেয়ে যাই, তাহলে একজন ব্লগার এর জন্য সেটা কতটা লাভজনক হতে পারে, সেটা আপনি নিজেই ভেবেনিন।
Google keyword planner tool

ওপরে দেয়া লিংকে গিয়ে নিজের গুগল একাউন্টের সাথে আপনার লগইন করতে হবে।

তারপর, “tools & settings” অপশনে ক্লিক করে “planning” ট্যাবে ক্লিক করতে হবে।


শেষে, “keyword planner” এর একটি অপসন আপনারা দেখবেন, যেখানে ক্লিক করলেই আপনারা keyword planning dashboard দেখতে পাবেন।
৩. Compressjpeg.comযেকোনো ছবি অনলাইন কমপ্রেস।

একজন ব্লগার হিসেবে আপনার হয়তো অনেক রকমের আর্টিকেল নিজের ব্লগে লিখতে লাগতে পারে।

এবং, বিভিন্ন রকমের টিউটোরিয়াল ব্লগ বা আর্টিকেল লেখার সময়, অনেক রকমের ছবি বা স্ক্রিনশট সেখানে দিতেই হয়।

কিন্তু, যত বেশি ছবি বা স্ক্রিনশট আপনি আর্টিকেলে যোগ করবেন, আপনার আর্টিকেল পেজের লোডিং স্পিড ততটাই বেশি স্লো হয়ে যাবে।

এই ক্ষেত্রে, যাতে আপনার আর্টিকেলে আপলোড করা ছবি গুলি, আপনার ব্লগের সেই পেজ স্লো করে না দেয়, তাই প্রত্যেক ছবি আপলোড করার আগে সেগুলি কমপ্রেস (compress) অবশই করে নিবেন।

এবং, যেকোনো ছবি অনলাইন কম্প্রেস করে তার সাইজ অনেক বেশি কমিয়ে দেয়ার জন্য আমরা “Compressjpeg.com” ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে পারি।

এই ফ্রি অনলাইন ইমেজ কম্প্রেসর (online image compressor) ওয়েবসাইট ব্যবহার করে আপনারা এক এক করে বা একেবারে ২০ টি ছবি একেবারেই (images) কম্প্রেস করে সেগুলির সাইজ কমিয়ে নিতে পারবেন।
৪. Canva



Canva.com অনলাইন টুল বা ওয়েবসাইট, প্রত্যেক ব্লগার দেড় জন্য অনেক কাজের একটি টুল। Canva ব্যবহার করে আপনারা নিজের ব্লগের জন্য একটি লোগো (logo) ফ্রীতেই তৈরি করতে পারবেন।


তাছাড়া, বিভিন্ন রকমের info graphics, ব্লগের জন্য thumbnail, featured image বা poster ফ্রীতেই canva অনলাইন টুল ব্যবহার করে বানাতে পারবেন।

আমি আমার প্রত্যেক ব্লগ পোস্ট বা আর্টিকেলের জন্য thumbnail বা featured image এই ক্যানভা (canva) ওয়েবসাইট ব্যবহার করেই তৈরি করি।

তাই, একজন ব্লগারের জন্য এই ক্যানভা (canva) অনলাইন টুল অনেক কাজের বলে প্রমাণিত হতে পারে।
৫. Ubersuggest’s (ফ্রি কীওয়ার্ড টুল)ফ্রি এস ই ও টুল

এখন একজন ব্লগার হিসেবে আপনারা বিভিন্ন SEO বা keyword research tool অবশই ব্যবহার করতে হয়। কিন্তু, প্রায় সব গুলি ভালো SEO tools পেইড, এবং paid SEO tools এর দাম অনেক পরিমানে বেশি।

এই ক্ষেত্রে, ubersuggest free SEO tool আপনার অনেক কাজে আসতে পারে।


এই seo tool একটি paid service এর মতোই আপনাদের প্রত্যেক premium seo features যেমন, keyword research, SEO analyzer, keyword ideas, content ideas, site audit, backlink checker এবং আরো অনেক রকমের SEO TOOLS আপনাদের দেয়।

আপনার বা আপনার কম্পেটিটর (competitor) এর ওয়েবসাইটে কতটা ভিসিট বা ট্রাফিক আসছে, কোন কোন ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক পাচ্ছেন, কোন কোন কীওয়ার্ড গুলিতে একটি ওয়েবসাইট রাংক (rank) করছে, সবটাই এই ফ্রি ubersuggest seo tool ব্যবহার করে জেনেনিতে পারবেন।

Ubersuggest ভালো ভালো paid SEO tools গুলির তুলনায় অনেক বেশি ভালো এবং সঠিক তথ্য আপনাদের দিবে।

তাই, ব্লগার হিসেবে এই টুল আপনার অনেক কাজে আসতে পারে বলে আমি ভাবি ,
Visit ubersuggest


আমাদের শেষ কথা,

তাহলে বন্ধুরা, একজন প্রফেশনাল ব্লগার হিসেবে আপনাদের কিছু জরুরি ও কাজের টুলস অবশই ব্যবহার করা দরকার। এবং, ওপরে আমি ৫ টি এমন অনলাইন টুলস এর ব্যাপারে বলিচি, যেগুলি কোনো সন্দহ ছাড়া আপনার ব্লগিং এর ক্যারিয়ারে অনেক অনেক কাজে আসবে।

এই টুলস গুলির মধ্যে প্রত্যেকটি আমি নিজেই ব্যবহার করছি এবং প্রায় ৯০% ব্লগাররা এই অনলাইন টুল গুলি ব্যবহার করেন।
বিজ্ঞাপন স্পেসের আগে / পরে

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন:

Sadikur Rahman
পোস্ট করেছেনঃ Sadikur Rahman
পোস্ট ক্যাটাগরি
0 মন্তব্য

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন. ??

সর্বশেষ আপডেটেড অফার পেতে চান?

আইটি ছাদিক কী?